মুখোশ – রহস্যময়, রোমান্টিক প্রেমের গল্প পর্ব ৮ | মোনা হোসাইন

Mukhosh

Mona Hossain { Part 8 } recap


রুহি পালিয়েছে দেখে রাজের রাগ হচ্ছে কিন্তু সে নিশ্চিত যে রুহিকে রাজের কাছে ফিরতে হবে তাই এত চাপ নিচ্ছে না।
ফোন টা হাতে নিয়ে রুহিকে ফোন দিল।
রুহি ঘুম ঘুম চোখে অপরিচিত নাম্বার দেখে রুহি কল রিসিভ করল। সে এখনো ট্রেনে বাড়ি পোঁছে নি।

রাজঃ হ্যালো ম্যাডাম গুড মরনিং....

রুহিঃ আরে কোন উগান্ডারে ঘুম টা ভেংগে দিলি।

রাজঃ আহা হা হা ম্যাম এর ঘুম ভেংগে গেল বোঝি? আমি তো বোঝতেই পাড়ি নি।

রুহিঃ সারারাত ঘুমাইনি মাথা ব্যাথা করছে খুব। কে বলছেন আর কাকে ফোন দিছেন তাড়াতাড়ি বলেন কারন আমি আপনাকে চিনতে পাড়ছি না।

রাজঃ আমি আপনার একজন অনুগত বান্দা।কিন্তু ঘটনা সেটা না ঘটনা হল আপনি পালালেন কেন?

রুহিঃ ওহ আচ্ছা তার মানে আপনি মিঃ সাইকো...
হি হি হি ভালই হইছে ফোন দিছেন। অনেকদিনের ইচ্ছা আপনাকে বকা দিব কিন্তু সামনে থাকলে ভয়ে দিতে পারি না এখন আর কোথায় পাবেন আমায়।তাই দিয়ে দেই।

রাজঃতাই নাকি তো দিয়েই ফেলুন আমি শুনছি।

রুহিঃ উগান্ডা,বদের হাড্ডি,গুইসাপের বাচ্চা তুই আমাকে পাইছিলি টা কি হ্যা শুনি?এভাবে অপমান করলি? তোকে আমি শীতের রাতে বরফ জলে ডুবিয়ে রাখব।তেলাপোকার স্যুপ খাওয়াব।জীবনেও চকলেট কিনে দিব না।

রাজঃ বাহ ভালই দিলেন কিন্তু শুধু এইটুকুই.... আর নেই?

রুহিঃ মনে পড়ছে না ঘুম থেকে উঠলে আমার মাথা কাজ করে না।

রাজঃ আহারে বেচারি....এর পর থেকে খাতায় লিখে রেখো কি কি বকা দিবে কেমন? আর শোন তোমার বকাগুলি আমার ভালই লেগেছে গালিগুলি বেশ ইন্টারেস্টিং।
আর আমি চকলেট দিয়ে কি করব? আমার বউয়ের ঠোঁট আছে তো।

রুহিঃবাবারে কি অসভ্য ছেলেটা? লোকে কি বলবে এসব কথা বলতে হয় না। আর সাইকোর বাচ্চা আমি ভাল লাগার জন্য এত কষ্ট করে গালি দিয়েছি নাকি?

রাজঃ গালি দিতে কষ্ট হয়?

রুহিঃ হবে না ট্রেনের সবাই আমার দিকে কেমন তাকিয়ে আছে।আমার লজ্জা লাগছে।

রাজের খুব হাসি পাচ্ছে রুহির কথা শুনে।হায়রে পাগলি এত সরল কেন তুই (মনে মনে)
রাজঃ না লজ্জার কিছু নাই সবাই বোঝতে পেড়েছে?
রুহিঃ কি বোঝেছে? আমি লক্ষি মেয়ে সেটাই তাই না?
রাজঃ না আপনি একটা লক্ষি ছেলের সাথে কথা বলছেন সেটাই বোঝেছে।

পড়ুন  বেপরোয়া ভালোবাসা পর্ব 1 | Bangla Romantic Premer Golpo

রুহিঃ দূর ভাল লাগে না উগান্ডা সবার সামনে আমাকে খারাপ বানিয়ে নিজে ভাল হয়ে গেল।

রাজের বেশ ভাল লাগছে রুহির সাথে কথা বলতে কারন রুহি ৩ মাস রাজের সাথে প্রেম করলেও এত ফ্রিলি কখনো কথা বলে নি। সবসময় ভয়ে ভয়ে থাকত।

রাজঃখেয়েছো কিছু?

রুহিঃ এখানে সাইকো আছে নাকি যে ঘুম থেকে উঠার আগেই মুখের সামনে খাবার তুলে ধরবে?

রাজঃ তারমানে স্বীকার করছো সাইকো তোমার কেয়ার ও করে?

রুহিঃ তাত একটু করতই।

রাজঃ একটু....???

রুহিঃ না অনেক টাই তবে তার চেয়ে অনেক বেশি কস্ট দেয়।

রাজঃ সে জন্য সাইকো কে ফেলে চলে গেলে? খারাপ লাগছে না?

রুহিঃ সত্যি বলব?

রাজঃ হুম....

রুহিঃ ট্রেন যখন ছেড়ে দিল খুব কান্না পাচ্ছিল।

রাজঃ পাগলি কোথাকার আচ্ছা গেছো যখন বাড়ি থেকে ঘুরে আসো।

রুহিঃ জ্বি না আমি আর ফিরছি না আমি সব মায়া কাটিয়ে দিয়েছি। আমাকে কত জোরে জোরে চড় মেরেছে,গালের ২ কেজি মাংস কমিয়ে দিয়েছে।আমার বেচারা জামাই টা আদর করে মজা পাবেনা।
রাজঃ আহ..... রুহি আশে পাশে লোকজন আছে,কি সব বলছো লোকে তোমায় কি ভাববে?

রুহিঃ কি ভাববে?

রাজঃ এটাই ভাব্বে যে রুহি জামাই আদুরি।জামাই এর আদরের পাওয়ার জন্য পাগল হয়ে গেছে।

রুহিঃ ইমমম কি বেহায়া ছেলে? কিসব বলছেন একটুও লজ্জা নাই আপনার?

রাজঃ এমা আমি কি বললাম তুমি তো বললা জামাই আদর করে মজা পাবে না।আচ্ছা আমি গাল টেনে বড় করে দিব কেমন?

রুহিঃ লাগবে না আমি আর কখনো আপনার সামনে যাব না। বাবা মার উচ্ছন্নে যাওয়া ছেলে কোথাকার

রাজঃ বাড়ি যাচ্ছো তাই মন খারাপ করে দিতে চাই না আগে যাও তারপর ফিড়িয়ে আনার ব্যবস্থা করছি

রুহিঃজ্বি না.....রুহি এত ফালতু না।
আমি আপনার সাথে আড়ি দিয়ে চলে এসেছি আমি আর আড়ি ভাংবও না মিলও হব না।

রাজঃ তাই...???

রুহিঃ আজব তো আমি আপনার সাথে কথাই বা বলছি কেন?যার সাথে আড়ি তার সাথে তো কথা বলা যায় না। বলেই ফোনটা কেটে দিল রুহি।

রাজ ফোন টা রেখে হেসে উঠল পাগলি একটা....
ভালবাসে সেটাও প্রকাশ করতে পাড়ে না।

পড়ুন  রাগী স্যার যখন ডেভিল হাসবেন্ড পর্ব 20 – বাংলা প্রেম কাহিনী

রুহি রাজকে ছেড়ে চলে গিয়েছিল সেটা মনে হলেই রাজের মেজাজ খারাপ হলেও আজ রুহিকে ধন্যবাদ দিতে ইচ্ছে করছে কারন রুহি সেদিন রাজকে ছেড়ে না গেলে, রুহিকে আজ নতুন করে সে পেত না।

রাজঃ আমার রুহি আজও আমারি আছে,এই সরল মুখটা আমার সাথে কখনই বেইমানি করতে পাড়ে না। কিছুতেই পাড়ে না। কি সরল তার কথা, এই নিষ্পাপ চোখ কাউকে ঠকাতেই পাড়ে না আমিই হয়ত ভুল বোঝেছিলাম।

যাক এবার আসলে অনেক আদর করব। অনেক ভুল করেছি শুধু শুধু কষ্ট দিয়েছি।বেচারির কত ইচ্ছা তার বর তার গালে আদর করবে আর আমি কি না থাপ্পড় মারলাম?ছি ছি ছি না একদম উচিত হয় নি।
অনেক ফাউল কাজ করেছি আর না এখন শুধুই ভালবাসব। কতটা ভালবাসি সবটাই বোঝাব কিন্তু ভয় দেখিয়ে নয় ভালবেসেই বোঝাব।
আজ তোমার করা সব ভুল আমি মাফ করে দিলাম। আমার রাজত্বে যে একটাই রানী সেটা শুধু তুমিই রুহি।

পরবর্তী পর্বের জন্য ক্লিক করুন :>> চলবে

Writer :- মোনা হোসাইন

Leave a Comment

Home
Stories
Status
Account
Search