সিনিয়র গার্লফ্রেন্ড-বাংলা রোমান্টিক গল্প পর্ব 1 | Senior Girlfriend

Senior Girlfriend

Amrin Talokder { Part 1 }

এই জানু আই লাভ ইউ..

ওই ছেলে এই দিকে আয়।
জ্বি, আন্টি আমাকে বলছেন??

একটা থাপ্পড় দিব না, তখন আর আন্টি বলতে পারবি না। আমাকে কি দেখতে তোর আন্টির মত লাগে নাকি।

আসলে আন্টির মত লাগে না, তবে এমনেই বললাম। তা আপুরা কেন ডাকলেন সেটা বলেন।

এত তারা কিসের, আজ কলেজে নতুন নাকি??
জ্বি,আপু আমি নতুন। তাহলে আমি যাই।

এখান থেকে এক পা সরবি তো তোর পা ভেঙ্গে দিব।

সালার কি বিপদে পরলাম, আচ্ছা চলেন আগে আপনাদের পরিচয় টা দিয়ে নেই,আমি আমরিন। বাবা মায়ের দুই মাত্র সন্তান,আমার একটা ছোট বোন আছে।

কি বলবেন তারা তারি বলেন, আমার ক্লাসের সময় হয়ে যাচ্ছে।

ওই যে একটা মেয়ে দেখছিস, ওই মেয়েকে যেয়ে বলবি আমি তোমাকে ভালোবাসি।
আপু আমি তো ওই মেয়েকে ভালোবাসি না, তাহলে কেন বলবো??

আমরা বলতে বলছি তাই বলবি।
যদি থাপ্পড় দেয়, আমি বলতে পারবো না, আপনি বলেন।

কিরে মুখে মুখে কথা বলা হচ্ছে। পেন্ট খুলে দিব কিন্তু, যা বলছি তা না করলে,পেন্ট খুলে দিব, বল এখন কি করবি?

আচ্ছা ঝামেলায় পরলাম তো, কে জানতো প্রথম দিন এরকম পরিস্থিতি শিকার হতে হবে, তাহলে ছোট বোনটাকে সাথে করে নিয়ে আসতাম। কি আর করার দেখি মাইয়াটাকে বলে, কি বলে,ভালো না বেসেও আই লাভ ইউ বলতে হবে এটা কোন কথা।

এই যে আন্টি শুনছেন....

কি সমস্যা ডাকছিস কেন, আর আমাকে কি তোর আন্টির মত দেখতে নাকি😡

আসলে আমি না.......
কি তুই আমাকে কি???
আপনাকে ভালোবাসি....

বলেই এক দৌড়ে ক্লাস রুমে চলে আসচ্ছি। 🏃‍♂️

পিছনে তাকিয়ে দেখি মেয়েটা দারিয়ে দারিয়ে হাসতেছে, আসলে মেয়েটিও দেখতে অনেক সুন্দর, আহ যদি এই মেয়েটার সাথে রিলেশন করতে পারতাম তাহলে জিবনটা ধন্য হয়ে যেত। নামটাও তো শুনতে পারিনি, আর কেন যে না দেখে আন্টি বলতে গেলাম, কোন কাজ আমার দ্বারা হয় না।

পড়ুন  মায়ের ভালোবাসা - বাংলা ইমোশনাল গল্প পর্ব 2 | Mayer Valobasha

ওই দিকে কি তাসফি, তুই ওরে কিছু বললি না কেন??
কি বলবো, বলার আগেই তো দৌড়ে পালিয়েছে,

হুমমম দেখলাম,কিন্তু ছেলেটা জোস, যদি আমার জুনিয়র না হতো তাহলে আমার জিবনে এটাকেই ঝুলাতাম | এই আশা কোন দিনও পুরন হবে না, ওর দিকে ভাইয়ের নজরে তাকাবি তোরা সবাই মনে যেন থাকে!

কেন ভাইয়া কেন,ও তো আমাদের ছোট??
বলছি তাই,এতো কিছু আমি বলতে পারবো না।
কি আমাদের বান্ধবীটা প্রেমে পরেছে বুঝি,
জানি না

বলেই তাসফি চলে গেল।
আর এই দিকে ক্লাসে এসে দেখি এখনও স্যার ক্লাসে আসে নাই, তাই একটা সিটে বসে পরলাম।

একটু পর একটা মেয়ে এসে আমার পাশে বসলো,

হাই আমি রুহি আপনি??
আমি আমরিন,
আচ্ছা আমরা তো একই ক্লাসে তাহলে আজ থেকে আমরা ফ্রেন্ড,
আচ্ছা ফ্রেন্ড,
তাহলে তুমি করে বলবো দুজনে,
আচ্ছা।

তো রুহি তোমার ফুল পরিচয় টা তো দিলে না। তারপর রুহি তার পরিচয় দিল,আর আমি আমার পরিচয় টা দিলাম,

ক্লাস শেষে রুহির সাথে হাসাহাসি করে বের হচ্ছি, এমন সময় সেই লেডি গ্যাং গুলোর সাথে দেখা। সাথে দেখি প্রোপোজ করা মেয়েটাও আছে, আমি আস্তে করে রুহি কে বললাম এই সেই মেয়ে গুলো।

আসলে রুহিকে সকালের ঘটে যাওয়ার করা গুলো বলতে ছিলাম আর হাসতে ছিলাম।

যাকে প্রোপোজ করেছিলাম নাম তো জানি না তাই নামটা বলতে পারলাম না,

কিরে সকাল বেলা আমাকে প্রোপোজ করে দুপুর বেলা অন্য মেয়েকে ঘুরা হচ্ছে।

দেখেন আপু আসলে তখন তো আপনার সাথে থাকা মেয়েদের তথা শুনে ওই সব করেছিলাম, আর ওর সম্পর্কে যা ভাবছেন তা নয়।

মানে সকাল বিকাল নতুন গালফ্রেন্ড নিয়ে গুরো, আর এখন বলছো এই মেয়ে কিছু না।

আচ্ছা আপু আমার আর আমরিনের মধ্যে যদি কিছু থাকে তাহলে আপনার কি?? আর আমরিন আমার বয়ফ্রেন্ড আপনার কোন সমস্যা। সমস্যা থাকলে বলতে পারেন না হলে চলে যান।

তার পর তাসফি চলে গেল, আর আমাকে আস্তে করে বলে গেল তোকে দেখে নিব, এখন কিছু বললাম না, আমার কাছে কোন উত্তর নেই বলে।

তাসফি চলে যাওয়ার পর রুহি কে বললাম এগুলা না বললেও হতো,

পড়ুন  Emotional Bangla Love Story Shishir Bindu Part 6

কেন হলে কি সমস্যা???
মানে কি হলে সমস্যা???
তোমার বুঝতে হবে না, তোমার মাথায় ঢুকবে না।

তার পর বাসায় চলে আসলাম,বিকেল বেলা ঘুমাবো আর এমন সময় কে যেন ফোন দিল, তাই সালাম দিয়ে বললাম কে??
বলতো আমি কে??

আজব তো আমি কেমনে জানবো আপনি কে, পরিচয় দিলে দেন না হলে ফোন রাখেন,আপনার সাথে কথা বলার সময় আমার নেই।

আরে রেগে যাচ্ছো কেন,আমি রুহি।।

রুহ হিহি, তুমি আমার নাম্বার পেলে কোথায়? (কিছুটা অবাক হয়ে,কেও ভাইবেন না রুহ হিহি লিখেছি ভুল হয়েছে,আসলে কিছুটা অবাক হয়েছি তো তাই এরকম ভাবেই বলেছি)

হুমম,কেন অন্য কাওকে আশা করেছিলে নাকি??
আসলে তা না,কিন্তু তুমি আমার নাম্বার পেলে কোথায়??
তুমি ভুলে যখন ফোন রেখে বাহিরে গেছিলে তখন নিয়েছি।
ওও

কেন নাম্বার নিয়ে কি ভুল কিছু করেছি নাকি,আচ্ছা তাহলে রাখছি,
আরে ভুল কিছু করবে কেন,তুমি তো আমার ফ্রেন্ড,তুমি চাইলেই দিতাম।
ও আচ্ছা।
হুমম,এখন বলো কি করছো।
কিছু না বসে আছি তুমি??

রুহির সাথে ২০ মিনিটের মত কথা বলে দেখি ঘুম চলে গেছে চোখ থেকে তাই আর না ঘুমিয়ে বাহিরে চলে আসলাম।

বাহিরে বসে আড্ডা দিয়ে রাত্রে বারিতে ফিরে খাবার খেয়ে দিলাম এক ঘুম, তারপর আবার কলেজ।

আজ কলেজে কেমন যেন অন্য রকম সাঝ, মনে হয় কোন অনুষ্ঠান হবে, কিছুক্ষণ পর ক্লাসে চলে গেলাম,রুহি আমার পাশে বসে আছে,

আচ্ছা রুহি আজ কি কলেজে অনুষ্ঠান নাকি।
আজ না কালকে হবে অনুষ্ঠান, আমাদের নবীন বরন অনুষ্টান করবে, প্রথম দিন করতো কিন্তু কিছু সমস্যা কারণে করে নাই,
ওও,

হুমম,
আচ্ছা কালকে কি কালার ড্রেস পরে আসবা,
দেখি কি পরে আসা যায়।
তোমার ফ্রেভরাইট কালার কি??
আমার কালার তোমার পছন্দ হবে না।।
তুমি বলোই না।

এত করে যখন বলছো তাহলে বলছি,আমার পছন্দের কালার নিল

ওও আমারও তো সেম।
তাই নাকি??
হুমমম,দুজনের অনেক মিল আছে তো।

মানে কি মিলের কথা বলছো??
কিছু না আচ্ছা বায় কালকে দেখা হবে।
ওকে।

আজকে তাসফি দুর থেকে কেমন করে যেন তাকিয়ে ছিল, মনে হলো কিছু বলবে, কিন্তু কোন কিছু হয়তো তাকে বাধা দিচ্ছিলো,তাই হয়তো বলতে পারছে না। আর আজকে একবারও আমার সামনে আসে নাই। তাসফি কে খুব মিছ করছি।সত্যি বলতে সিনিয়র মেয়েতের প্রতি আমি অনেক দুর্বল

পড়ুন  Valobashi Dujone Part 1 | Best Romantic Love Story

তার মধ্যে যদি এরকম সুন্দর মায়াবি হয়, তাহলে প্রেমে না পরে কথা আছে।
তাই অনেক কষ্টে তাসফির নাম্বার জোগাড় করলাম, যেই ভাবা সেই কাজ, রাতে ফোন দিলাম।

রিং হচ্ছে কিন্তু আননোন নাম্বার বলে হয়তো ধরছে না।
২ বার দিয়েছি,এবার লাষ্ট ৩ বারের বার ফোন ধরলো,

হ্যালো কে বলছেন,

তুমি আজ যার জন্য মন খারাপ করে ছিলে সেই আমি।

মানে!!!
তুমি বলো কে আমি।

পরিচয় দিলে দে না হলে ফোন রাখ,
আচ্ছা কালকে পারিচয় দেই,কালকে নিল শাড়ি পরে কলেজে আসবেন প্লিজ।

তোর কথা আমাকে শুনতে হবে কেন,কে তুই,আগে পরিচয় দে তার পর পরবো কিনা পরবো না সেটা পরে দেখা যাবে।

আপনি আজ কারো দিকে তাকিয়ে ছিলেন কলেজ ছুটির সময় মন খারাপ করে,সেই আমি, এখন আপনার ইচ্ছে কাল নিল শাড়ি পরে আসবেন নাকি আসবেন না।

এই বলে ফোন রেখে দেই,তার পর অনেক বার তাসফি ফোন দিয়েছিল কিন্তু আমি ফোন ধরি নাই।

আজ কলেজে আমাদের নবীন বরন অনুষ্টান।

আগামী পর্বের জন্য অপেক্ষা করেন,

Click Here For Next :চলবে

Writer :- Amrin Talokder

Leave a Comment

Home
Stories
Status
Account
Search