Heart Touching Bangla Romantic Golpo Tomar Amar Prem Part 9

তোমার আমার প্রেম

Imtihan Imran { Part - 09 }

আয়ান নিজের রুমে চলে যায় বরের সাজ দেওয়ার জন্য। সিজানও নিজের রুমে গিয়ে পাঞ্জাবী পায়জামা পড়ে রেডি হয়ে আয়ানের রুমে ঢুকে পড়ে, আয়ানকে সাহায্য করার জন্য।

" বাহ দোস্ত তোকে তো নতুন জামাই জামাই লাগছে। মাথায় বরের টুপি দিলে, নির্ঘাত সবাই মনে করবে তুইই জামাই। আর আমি জামাইয়ের ছোট ভাই। (হেসে মজা করে)

Bangla Romantic Golpo

" ধুর শালা মজা রেখে রেডি হও। আর তোর বউ আমার বউ একই কথা। তাই সমস্যা নাই, আমি বিয়ে করলেও যা,তুই বিয়ে করলেও তা (হেসে মজা করে)

" না না তা হবে না। তোমার বউ আমার বউ। আর আমার বউ তোমার ভাবী হবে।
" ওরে দেখো শালার শখ কতো। আমার বউ নিবে অথচ নিজের বউ দিবে না।
" হাহাহা।

দুই বন্ধুর হাসি ঠাট্টার মাঝেই আয়ান রেডি হয়ে যায়।
আয়ান আয়নার সামনে গিয়ে নিজেকে একবার দেখে নেয়। সিজান পিছন থেকে বলে,

" ভালোই মানিয়েছে, নতুন জামাইকে।
" সত্যি?
" একদম পাক্কা সত্যি।

দুই বন্ধু একসাথে রুম থেকে বের হয়ে নিচে যায়। যেখানে সবাই তাদের জন্য অপেক্ষা করছে।

দুই বন্ধুকে আসতে দেখে সবার দৃষ্টি তাদের উপর পড়ে।

" এতোক্ষন লাগে তোদের সাজতে। সবাই কখন থেকে দাঁড়িয়ে আছে।

আয়ানের মা এসে কথাটা বলল।

" আন্টি আমার কোনো দোষ নাই। ওকে তাড়াতাড়িই সাজতে বললাম। কিন্তু সে বারবার গিয়ে আয়নার সামনে দাঁড়ায়। নিজেকে দেখে। বুঝছেন আন্টি বেচারা বহুত টেনশনে আছে।বারবার আমাকে জিজ্ঞেস করছে তাকে কেমন লাগছে বলছে। আন্টি আপনি বলে দেন তো, কেমন লাগছে।

" আমার ছেলেকে তো মাসাল্লাহ অনেক সুন্দর লাগছে।।
" ঠিক তাই আন্টি। আমি তো এতোক্ষন এটাই বলছিলাম। তারপরেও জিজ্ঞেস করতে করতে আমাকে জ্বালিয়ে মারছিল।
" ওয়াও ভাইয়া ওয়াও। ধামাকা লাগতেছে তোকে।

" এই মেয়ে তুমি কি পাগল হইছো? কি এম্বুলেন্সের মতো ওয়াও ওয়াও লাগিয়েছো। কতো সুন্দর লাগছে আমার বন্ধুকে, আর তুমি এম্বুলেন্সের মতো ওয়াও ওয়াও শুরু করছো?

" ভাইয়া তোর বন্ধু হঠাৎ এমন করছে কেনো? আমি তো তোর সুনাম'ই করছিলাম।
" কিরে সিজান, তুই আমার বোনকে পাগল বলছিস কেনো? ও তো আমার সুনাম করছিলো.।
" আচ্ছা সুনাম করছিল। আমি মনে করছিলাম এম্বুলেন্সের মতো ডাক দিচ্ছিল।
" এই যে মিস্টার সিজান ভালো হবে না বলে দিচ্ছি।
" অনেক ঝগড়া, কথা হয়েছে। এবার তাড়াতাড়ি চল, দেরি হয়ে যাচ্ছে।

Bangla Valobashar Golpo

রাস্তায় এসে দাঁড়াতেই সিজানের চোখ ছানাবড়া হয়ে যায়। রাস্তার পাশে লাইন ধরে প্রায় ত্রিশ টার মতো রিক্সা দাঁড়িয়ে আছে। অবশ্য এটা সিজান অনুমান করে বলেছে। তার বেশিও হতে পারে। কমও হতে পারে। এই রিক্সা গুলো এখানে লাইন ধরে দাঁড়িয়ে আছে কেনো, সিজান এখনো তা বুঝে উঠতে পারছে না।

কিছুক্ষণের ভিতর অবশেষে রিক্সা গুলোর দাঁড়িয়ে থাকার কারন সিজান বুঝতে পারল। যখন বর পক্ষের সকল আত্নীয় স্বজন, বন্ধু বান্ধব একজন একজন করে রিক্সায় উঠতে লাগল।

বর পক্ষ রিক্সায় করে কনে আনতে যাবে। অদ্ভুত তো! সিজানকে অবাক হয়ে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখে আইরিন নিজের হাত দিয়ে তুড়ি বাজিয়ে সিজানের দৃষ্টি আকর্ষন করে।

" কী মিস্টার ? খুব অবাক মনে হচ্ছে?
" অবাক হওয়া কি স্বাভাবিক নয়?
" আমাদের এই এলাকায় বিয়ে হলে রিক্সায় করেই বরযাত্রী কনে আনতে যায়।
" এমন কেনো?
" বোকা নাকি? দেখেন না রাস্তার সাইজ। এই রাস্তায় বড় গাড়ি চলার সামর্থ্য আছে নাকি।? তাই তো রিক্সায় বরের গাড়ি।

" যাই হোক। আমার কাছে ব্যাপারটা খুব ইন্টারেস্টিং লাগছে। আর মজাও লাগছে, রিক্সা করে যাবো। নতুন অভিজ্ঞতা হবে। (হেসে)

" ওই আইরিন গল্প না করে তাড়াতাড়ি উঠে পড়।
" আসছি।

আসেন আসেন রিক্সায় উঠি।

আইরিন রিক্সায় উঠে বসে। সিজান অন্য রিক্সার দিকে যেতে চাইলে আইরিন ডাক দেয়।

" আরে ওইদিকে কোথায় যাচ্ছেন?
" রিক্সায় উঠতে।
" তো ওইদিকে কেনো যাচ্ছেন? এখানে উঠে পড়ুন। (নিজের পাশে সিট দেখিয়ে)
" তোমার পাশে বসবো? কেউ কিছু মনে করবে না?
" কিছু কেনো মনে করবে? এতো ভাববেন না তো। আসুন।

Bangla Premer Golpo

সিজান রিক্সায় উঠে ফারিনের পাশে বসে পড়ে। সবাই রিক্সায় উঠে বসার পর, রিক্সা রওনা দেয়। উদ্দেশ্য কনের বাড়ি।

" খুব ভালো লাগছে তাই না?
" অনেক। বলে বুঝাতে পারবে না। ইশ! এভাবে যদি বিয়েতে রিক্সার নিয়ম থাকতো, কতো মজা হতো,তাই না।
" জি একদম। দাঁড়ান দাঁড়ান আমরা সেলফি তুলবো।
" দাঁড়াবো..? (হেসে)
" আরে না..(হেসে)

আইরিন নিজের মোবাইল বের করে খচখচ করে কয়েকটা সেলফি তুলে নেয় নিজের আর সিজানের।

Click Here For Next :চলবে

Writer :- Imtihan Imran

Leave a Comment